মুক্তপাঠ

আজ হতে চির-উন্নত হল শিক্ষাগুরুর শির

শিক্ষাগুরুর মর্যাদা কাজী কাদের নেওয়াজ বাদশাহ আলমগীর- কুমারে তাঁহার পড়াইত এক মৌলভী দিল্লীর। একদা প্রভাতে গিয়া দেখেন বাদশাহ- শাহজাদা এক পাত্র হস্তে নিয়া ঢালিতেছে বারি গুরুর চরণে পুলকিত হৃদে আনত-নয়নে,...

সবার আমি ছাত্র

সবার আমি ছাত্র সুনির্মল বসু আকাশ আমায় শিক্ষা দিল উদার হাতে ভাইরে, কর্মী হবার মন্ত্র আমি বায়ুর কাছে পাই রে। পাহাড় শিখায় তাহার সমান- হই যেন ভাই মৌন-মহান, খোলা মাঠের...

রুপসী বাংলার কবি জীবনানন্দ দাস এর বনলতা সেন

বনলতা সেন হাজার বছর ধ’রে আমি পথ হাঁটিতেছি পৃথিবীর পথে, সিংহল সমুদ্র থেকে নিশীথের অন্ধকারে মালয় সাগরে অনেক ঘুরেছি আমি; বিম্বিসার অশোকের ধূসর জগতে সেখানে ছিলাম আমি; আরো দূর অন্ধকারে...

বইমেলা শুরুর কথা : 

বাজারে হাজার হাজার বই, কিন্তু পাঠক ভালো বই খুঁজে তেমন পায়না। তাই আমরা চেষ্টা করছি, পাঠকের হাতে কিছু ভালো বই তুলে দিতে। আমরা নিজেরা প্রকাশ করার পাশাপাশি বাজারের সেরা মনসম্মত বই সংগ্রহ করে বিক্রয় করে থাকি। বইমেলা বিশ্বাস করে নিসঙ্গতার সবচেয়ে বড় বন্ধু বই, যার সঙ্গে ভালো বই থাকে সে কখনো একা হতে পারেনা। তাই আমরা আপনাদের হাতে তুলে দিতে চাই বিশ্বমানের ভালো বই। তথ্যপ্রযুক্তির যুগে আমরা কাগজের বইয়ের পাশাপাশি PDF বইও বিক্রয় করি বইপ্রেমীদের যন্ত্রে। একটা ভালো বই পাঠকের হাতে পৌঁছিয়ে দিতে পারার আনন্দ সবচেয়ে বেশি। তেমনি ভালো বইয়ের বাজার জাতকরণ লেখকের জন্য আনন্দের।

বইমেলা একই সাথে বই প্রকাশ করে, বিক্রয় করে, বাজারজাত করে, প্রকাশনার যাবতীয় কাজে সাপোর্ট দেয়। বই আমার প্রথম ভালবাস, বিশ্বজোড়া পাঠশালা এই প্রত্যয় নিয়ে বইমেলা পদযাত্রা শুরু করেছিলো, হাাঁটি হাঁটি পায়ে বইমেলা এগিয়ে যাচ্ছে। বইমেলা ছড়িয়ে যেতে চায় পাঠকের পড়ার টেবিলে, ভ্রমন ব্যাগের ভিতরে, নৈশব্দের নিশ্বাসে।

আপনার ভালো বইটি বিক্রয়ের জন্য বইমেলা যেমন বিশ্বাস্ত সঙ্গী তেমনি আপনার একটি ভালো বই প্রকাশে বইমেলা হতে পারে সবচেয়ে বিশ্বস্ত বন্ধু। আমরা মুনাফা ছাড়া কাজ করিনা তবে এটা সত্য যে মুনাফাই আমাদের আসল উদ্দেশ্য নয়, আমরা আমাদের সীমিত মুনাফা শুধুমাত্র পরিচালনার জন্যই গ্রহণ করি, তাই আমাদের সেবা গুনগত মানে বাজারের বইপন্যগুলির থেকে যে উন্নত হবে বলার অবকাশ রাখেনা।

বইপ্রকাশে ও বই ক্রয়ে বইমেলা হোক আপনার বিশ্বাস্ত আস্তা। আপনার বিশ্বাস ই আমাদের মূলধন…

সম্ভবত আমার সব চেয়ে বেশি পাঠকৃত লাইনের মধ্যে অন্যতম লাইন “বিশ্বজোড়া পাঠশালা মোর সবার আমি ছাত্র”  এই অমর বাণীকে হৃদয়ে ধারণ করে কিছু একটা করার ইচ্ছা আমার ছোট বেলা থেকেই ছিলো সেই বানীটাকে শুধু প্রচারের লক্ষ্যেই বইমেলার জন্ম।

বিভিন্ন শিল্প ও সাহিত্যের কাজে সাথে সম্পৃক্ত থাকায় আমার দীর্ঘ অভিজ্ঞতায় আমি একটি জিনিস খুবই ভালো ভাবে লক্ষ্য করেছি যে, বাজারে সস্তা ভাড়ামী বইয়ের ভিড়ে আমরা ভালো বই খুঁজে পাচ্ছিনা। তাই আমার ভিতরে একটা চাপা হতাশা জমে থাকে। অবশেষে আমি সিদ্ধান্ত নিলাম, বাজারে যখন নেই তখন আমিই এই কাজটি শুরু করবো। সেই ভাবনা থেকেই আমার বইমেলার যাত্রা শুরু করি। বাজারের প্রায় এক হাজার ভালো বই আমরা বাছায় করতে পেরেছি। যে বইগুলো এখন থেকে আমরা প্রমোট করবো, দেশে এবং বিদেশে।

যে কোন প্রকাশনীর ভালো বই আমাদের জুরী বোর্ডের কাছে মানসম্মত মনে হলেই কেবল আমরা সেই বইয়ের তালিকা আমাদের তালিকায় স্থান দিবো। যদি কোন লেখক বা প্রকাশক মনে করেন তার মান সম্মত বইটি আমাদের তালিকায় আসা উচিৎ, তাহলে আমাদের আপিল বিভাগে জানালে আমরা সেই বইটি সংগ্রহ করে মূল্যায়ন করার চেষ্টা করবো।

বই হোক আপনার প্রথম সঙ্গী, আপনার সেই পথের আমরা হতে চাই সহযাত্রী

পথ কতদূর! ঘোর অন্ধকার; তবুও আমরা হেঁটে যাই, অজানার পথে.

জানি আধার কেটে গেলেই পথ দেখা যাবে!

প্রতিষ্ঠাতা, সত্তাধিকারী, সিইও 
বইমেলা